জাপানে কোন কাজের চাহিদা বেশি ও কাজের বেতন কত ২০২৪

সারা বিশ্বের উন্নত প্রযুক্তির দেশ হচ্ছে জাপান আর এই দেশটির প্রযুক্তি থেকে শুরু করে সবকিছুই উন্নত। আর দেশটি উন্নত হওয়ায় সব ধরনের কাজকর্মে সুযোগ সুবিধা বেশি পাওয়া যায়। এজন্য এখন বাংলাদেশের অনেক শ্রমিক জাপানে বিভিন্ন কাজের জন্য যেতে চায় কিন্তু দেখা যাচ্ছে তাদের জাপানে কোন কাজের চাহিদা বেশি এবং বিভিন্ন কাজের বেতন জানা থাকে না। তবে জাপানে যাওয়ার পূর্বে অবশ্যই জাপানে কোন কাজের চাহিদা বেশি এবং কাজের বেতন সম্পর্কে জেনে নেওয়া উচিত।

কারণ বর্তমান সময়ে জাপানে বিভিন্ন ধরনের কাজের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। আর সেগুলো কাজের বেতন একেক কাজে একেক রকম ভাবে নির্ধারণ করা থাকে। এছাড়াও জাপানে যে শুধু সাধারণ মানের কাজ আছে তা না জাপানে এখন বড় বড় নির্মাণ কোম্পানি এবং বিভিন্ন কোম্পানিও রয়েছে আর সেগুলো কোম্পানিতে বেতন অনেক বেশি পাওয়া যায়। তাই প্রিয় ভিজিটরদের সুবিধার্থে আজকের পোস্টে জাপানে কোন কাজের চাহিদা বেশি এবং বিভিন্ন কাজের বেতন তুলে ধরবো।

জাপানে কোন কাজের চাহিদা বেশি

বর্তমান সময়ে জাপানে বিভিন্ন ধরনের কাজের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। এখন বাংলাদেশের প্রায় অধিকাংশ শ্রমিকের পছন্দের একটি দেশ হচ্ছে জাপান। অনেকে জাপানে বিভিন্ন কাজের জন্য যেতে চায় কিন্তু তাদের জাপানে কোন কাজের চাহিদা বেশি তা জানা থাকে না। তবে জাপান ভিসার আবেদন করার আগে অবশ্যই জাপানে কোন কাজে চাহিদা বেশি তা বিস্তারিত জেনে নিতে হবে। তাই এখন জাপানে কোন কাজের চাহিদা বেশি সেগুলো কাজের নাম তুলে ধরা হলো।

  • কনস্ট্রাকশন
  • ইলেকট্রনিক্স
  • মেকানিক্যাল
  • কম্পিউটার অপারেটর
  • নার্স
  • ক্লিনার
  • ফুড প্যাকেজিং
  • সেলসম্যান
  • হোম ডেলিভারি ম্যান
  • ফ্যাক্টরি
  • কৃষিকাজ ইত্যাদি।

জাপানে সর্বনিম্ন বেতন কত

এখন প্রায় অধিকাংশ মানুষ একটি উন্নত দেশে কাজের উদ্দেশ্যে যেতে চায়। তবে জাপান কাজের উদ্দেশ্যে যাওয়ার আগে অবশ্যই জাপানে সর্বনিম্ন বেতন কত টাকা তা জানতে হবে কারণ জাপানে কাজের উপর ভিত্তি করে বেতন দিয়ে থাকে। তবে যদি আপনি অভিজ্ঞ কাজের লোক হয়ে থাকেন তাহলে মাসে অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

সাধারণত জাপান সর্বনিম্ন বেতন প্রতি ঘন্টায় ৯০০ টাকা। কেউ চাইলেও আপনাকে প্রতি ঘন্টায় ৯০০ টাকার কম দিতে পারবে না। তাহলে আপনারা বুঝতেই পারছেন প্রতি মাসে বাংলাদেশি টাকায় কত টাকা ইনকাম করতে পারবেন। কিন্তু কোন কাজের ওপর অভিজ্ঞতা থাকলে ঘন্টায় এর চেয়েও বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

জাপানে কোন কাজের বেতন বেশি

যারা জাপানে কাজের উদ্দেশ্যে যেতে চাচ্ছে তাদের মধ্যে বেশিরভাগ মানুষ জানার আগ্রহ করে জাপানে কোন কাজের বেতন বেশি। এজন্য অনেকেই জাপানে কোন কাজের বেতন বেশি সে বিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য অনলাইনে অনুসন্ধান করে। তাই সবার সুবিধার্থে জাপানে কোন কাজের বেতন বেশি তা এখন আপনাদের মাঝে তুলে ধরব। জাপান হচ্ছে একটি প্রযুক্তি উন্নত দেশ আর সেখানকার সব ধরনের প্রযুক্তি অনেক উন্নত।

এজন্য তারা সবসময় প্রযুক্তি উন্নয়ন করার জন্য বিভিন্ন দেশ থেকে প্রযুক্তি উন্নয়ন কর লোকদের নিয়োগ দেয়। বর্তমানে জাপানে কনস্ট্রাকশন, ইলেকট্রনিক্স, মেকানিক্যাল ও কম্পিউটার অপারেটর এদের চাহিদাও অনেক বেশি এবং এদের বেতনও অনেক বেশি। তবে আপনারা যারা জাপানে কাজের উদ্দেশ্যে যেতে চাচ্ছেন তাদের এইসব কাজের উপর অভিজ্ঞতা থাকলে প্রতি মাসে অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ ইউরোপে কোন কাজের চাহিদা বেশি ও বেতন কত

জাপানে কাজের বেতন কত

মূলত জাপান হচ্ছে একটি উন্নত রাষ্ট্র যেখানে অভিজ্ঞ কাজের লোকদের অনেক মূল্যায়ন করা হয়। এছাড়াও জাপান যাওয়ার জন্য আপনার অবশ্যই জাপানি ভাষার ওপর দক্ষতা এবং কাজের উপর অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। জাপানে কাজের ধরনের উপর ভিত্তি করে বেতন দিয়ে থাকে। তাই জাপানে যাওয়ার আগে যেকোনো একটি কাজের উপর অভিজ্ঞতা অর্জন করে যেতে পারেন তাহলে প্রতি মাসে প্রচুর পরিমাণে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

তাছাড়াও জাপানের প্রযুক্তি অনেক উন্নত হওয়ায় সব ধরনের কাজকর্মের সুযোগ সুবিধা বেশি পাওয়া যায় এবং অল্প পরিশ্রমে ভালো পারিশ্রমিক পাওয়া যায়। এজন্য অনেকেই জাপানে কোন কাজের বেতন কত তা বিস্তারিত জানার জন্য অনলাইন অনুসন্ধান করে। তাই সবার সুবিধার্থে জাপানে কোন কাজের বেতন কত তা নিচে উল্লেখ করে দেওয়া হলো।

কনস্ট্রাকশন, ইলেকট্রনিক্স, মেকানিক্যাল ও কম্পিউটার অপারেটরঃ বর্তমানে এসব কাজের বেতন জাপানের টাকায় ২,৬০,০০০ ইয়ান থেকে ৩,২০,০০০ ইয়ান পর্যন্ত। যা বাংলাদেশি টাকায় হিসেব করলে বেতন ২,০০,০০০ থেকে ২,৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে। তবে যদি আপনাদের এসব কাজের ওপর অভিজ্ঞতা ভালো থাকে এবং কাজের ধরন ভালো থাকে তাহলে মাসে আরো বেশি ইনকাম করতে পারবেন।

নার্স, ক্লিনার, ফুড প্যাকেজিং, সেলসম্যান, হোম ডেলিভারি ম্যান, ফ্যাক্টরি ও কৃষিকাজঃ জাপানে এসব কাজের চাহিদা অনেক কিন্তু এগুলো কাজের বেতন অন্যান্য কাজের তুলনায় একটু কম। এইসব কাজের বেতন জাপানের টাকায় ১,০০,০০০ ইয়ান থেকে ২,০০,০০০ ইয়ান পর্যন্ত। যা বাংলাদেশী টাকায় হিসেব করলে বেতন ৭৮,০০০ থেকে ১,৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।

জাপানের ১ টাকা বাংলাদেশের কত টাকা

যারা জাপানে যেতে যাচ্ছে তাদের মধ্যে অধিকাংশ মানুষের জানা নেই জাপানের ১ টাকা বাংলাদেশের কত টাকা। তবে জাপান কাজের উদ্দেশ্যে যাওয়ার আগে অবশ্যই এই বিষয়ে জেনে রাখা খুবই প্রয়োজন। তাই সবার সুবিধার্থে জাপানের এক টাকা বাংলাদেশের কত টাকা তা এখন তুলে ধরবো। আপনারা হয়তোবা উপরে জানতে পেরেছেন জাপানের টাকাকে ইয়ান বলা হয়। এবার চলুন জেনে নেওয়া যাক জাপানের ১ টাকা বাংলাদেশের কত টাকা। তাহলে জাপানের ১ ইয়ান = বাংলাদেশি টাকায় বর্তমান রেট ০.৭৫ টাকা।

শেষ কথাঃ

বাংলাদেশ থেকে এখন বেশিরভাগ মানুষ জাপানে বিভিন্ন কাজের জন্যও যেতে চায় কিন্তু দেখা যাচ্ছে তাদের জাপানে কোন কাজের চাহিদা বেশি এবং বিভিন্ন কাজের বেতন জানা থাকে না। তাই সবার সুবিধার্থে আজকের পোস্টে জাপানে কোন কাজের চাহিদা বেশি এবং বিভিন্ন কাজের বেতন তুলে ধরেছি। আশা করি আপনারা জাপানে কোন কাজের চাহিদা বেশি এবং কাজের বেতন জানতে পেরেছেন। এছাড়াও যদি এইরকম আরো নতুন নতুন কোন তথ্য পেতে চান তাহলে আমাদের ওয়েবসাইটের সাথে থাকুন।

Leave a Comment