জার্মানিতে কোন কাজের চাহিদা বেশি ও সর্বনিম্ন বেতন কত ২০২৪

জার্মানিতে কোন কাজের চাহিদা বেশি ও জার্মান সর্বনিম্ন বেতন,, ইউরোপের মধ্যে একটি সুন্দর পরিচ্ছন্ন দেশ হলো জার্মানি। বর্তমানে অন্যান্য দেশের চেয়ে ইউরোপের দেশ জার্মানি অনেক উন্নত। বর্তমান সময়ে জার্মানিতে বিভিন্ন ধরনের কাজের চাহিদা রয়েছে তার জন্য প্রচুর কাজের লোকের অভাব দেখা দিচ্ছে। আমাদের বাংলাদেশ থেকে অনেকে আছে যারা অবৈধভাবে জার্মানে গিয়ে বসবাস করছে তবে পরে বৈধ হচ্ছে।

আবার অনেকে প্রবাস জীবনের জন্য ইউরোপের দেশ জার্মানকে বেছে নিয়েছে। আমরা কমবেশি সবাই জানি জার্মান বৈধভাবে যাওয়ার জন্য অবশ্যই কোন বিষয়ের উপর যোগ্যতা থাকতে হয়। কিন্তু অনেকে আছে যারা জার্মান যাওয়ার চিন্তা-ভাবনা করছে তবে তাদের জানা নেই জার্মান কী ধরনের কাজের চাহিদা রয়েছে।

তাই তারা জার্মানিতে কোন কাজের চাহিদা বেশি সে বিষয়ে জানার জন্য ইন্টারনেটে অনুসন্ধান করেন। এজন্য আজকের পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের জানানোর চেষ্টা করবো জার্মানিতে কোন কাজের চাহিদায় বেশি ও বেতন কত।

জার্মানিতে কোন কাজের চাহিদা বেশি

বর্তমানে জার্মানিতে অনেক ধরনের কাজের চাহিদা রয়েছে। যারা জার্মানি যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন তাদের জার্মানিতে কোন কাজের চাহিদা বেশি সে সম্পর্কে একবার হলেও জেনে নেওয়া প্রয়োজন। কেননা জার্মানিতে যাওয়ার জন্য আপনার যেকোনো একটি বিষয়ের ওপর যোগ্যতা থাকতে হবে। আর জার্মানি অভিজ্ঞ লোকদের অনেক মূল্যায়ন করা হয়। বর্তমানে জার্মানিতে কোন কাজের চাহিদা বেশি রয়েছে সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। জার্মানিতে কোন কাজের চাহিদায় বেশি সেগুলোর মধ্যে কয়েকটি নিচে উল্লেখ করা হলো।

  •  কনস্ট্রাকশন
  •  ড্রাইভিং
  •  কম্পিউটার অপারেটর
  •  মেকানিক্যাল
  •  রেস্টুরেন্ট বা রেস্তোরাঁ
  •  নেটওয়ার্ক ইঞ্জিনিয়ার
  •  হোটেল বয়
  •  ওয়েল্ডিং
  •  ডাক্তার
  •  মেডিকেল ক্লিনার
  •  শপিংমল ক্লিনার
  •  ফুড প্যাকেজিং
  •  ফুড ডেলিভারি
  •  সিকিউরিটি গার্ড ইত্যাদি।

জার্মান সর্বনিম্ন বেতন কত

প্রতিবছর বাংলাদেশ থেকে অনেকেই জার্মান কাজের উদ্দেশ্যে যায়। জার্মান অনেক ধরনের কাজ রয়েছে একেক কাজের একেক রকম বেতন নির্ধারণ করা থাকে। আবার আপনার কাজের উপর ভিত্তি করে বেতন নির্ধারণ থাকে। অনেকে জার্মান যেতে চায় তবে তাদের জানা নেই জার্মান সর্বনিম্ন বেতন কিরকম হতে পারে। যারা জার্মান যেতে চায় তাদের অবশ্যই এই বিষয় জেনে নেওয়া প্রয়োজন।

তাই সবার সুবিধার্থে এখন জানানো হবে জার্মান সর্বনিম্ন বেতন কত। জার্মানিতে যদি আপনি কাজের উদ্দেশ্যে যান তাহলে প্রতি ঘন্টায় সর্বনিম্ন ৮.৫ ইউরো পাবেন। যা বর্তমানে বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ৯০০ টাকার মতো। যদি আপনি বাংলাদেশ থেকে কোন কাজের ওপর দক্ষ বা অভিজ্ঞ হয়ে জার্মান যেতে পারেন তাহলে প্রতি মাসে ইনকাম বেশি করতে পারবেন।

জার্মানিতে কোন কাজের বেতন কত

বর্তমানে জার্মান অনেক রকমের কাজ রয়েছে। যার যার অভিজ্ঞতা অনুযায়ী জার্মানিতে কাজের ভিসা লাগায়। জার্মানিতে কোন কাজের চাহিদা বেশি সে সম্পর্কে জানে তবে অনেকে জানে না জার্মান কোন কাজের বেতন কত। এবং জার্মান কোন কাজের বেতন কত এটা জানার জন্য ইন্টারনেটে অনুসন্ধান করে। তাই তাদের উদ্দেশ্যে আমরা এই পোস্টে জার্মানিতে কোন কাজের বেতন কত সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

প্রথমে আপনাদের জেনে নেওয়া দরকার জার্মানের এক ইউরো বাংলাদেশি টাকায় কত টাকা। কেননা এতে আপনারা সহজেই বুঝে যাবেন কোন কাজের বেতন কত। আর আমরা কমবেশি সবাই জানি জার্মানের টাকাকে ইউরো বলা হয়। তাহলে দেখে নেন জার্মানি ১ ইউরো = বাংলাদেশি টাকায় বর্তমান রেট ১১৮.৪৯ টাকা। এবার চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক জার্মানিতে কোন কাজের বেতন কত।

আরো পড়ুনঃ সৌদি আরব রেস্টুরেন্ট ভিসা ও বেতন কত

কনস্ট্রাকশন নেটওয়ার্ক ইঞ্জিনিয়ার, কম্পিউটার অপারেটর, ডাক্তার ও শিক্ষকঃ

এদের কাজের বেতন জার্মানি টাকার ৩,৫০০ ইউরো থেকে ৫,০০০ ইউরো পর্যন্ত

যা বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ৪,১৫,০০০ টাকা থেকে ৫,৯২,০০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।

ড্রাইভিং, রেস্টুরেন্ট বা রেস্তোরাঁ, ফুড ডেলিভারি, ওয়েল্ডিং ও মেকানিক্যালঃ

এদের কাজের বেতন জার্মানি টাকার ২,৫০০ ইউরো থেকে ৩,০০০ ইউরো পর্যন্ত

যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ২,৯৫,০০০ টাকা থেকে ৩,৫৫,০০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।

মেডিকেল ক্লিনার, শপিংমল ক্লিনার, হোটেল বয় ও সিকিউরিটি গার্ডঃ

এদের কাজের বেতন জার্মানি টাকার ৮৪০ ইউরো থেকে ১৬৭০ ইউরোপ পর্যন্ত

যা বাংলাদেশী টাকায় ১,০০,০০০ টাকা থেকে ২,০০,০০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।

শেষ কথাঃ

আজকের পোষ্টের জার্মানিতে কোন কাজের চাহিদা বেশি ও জার্মান সর্বনিম্ন বেতন কত সে বিষয়ে জানানোর চেষ্টা করেছি। আশা করি আপনারা জার্মানিতে কোন কাজের চাহিদা বেশি ও জার্মান সর্বনিম্ন বেতন কত সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। যদি আমাদের আজকের এই আর্টিকেল আপনাদের কাছে ভালো লেগে থাকে তাহলে বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে দিন। এছাড়া এরকম আরো নতুন নতুন তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটের সাথে থাকুন।

Leave a Comment