মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে ও ভিসা আবেদন করার নিয়ম ২০২৪

মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে ও মালয়েশিয়া ভিসা আবেদন কিভাবে করতে হয় সে বিষয়ে জানতে হলে আমাদের সাথে থাকুন। বাংলাদেশ থেকে যেকোন দেশে যেতে প্রথমত আপনার ভিসার প্রয়োজন অবশ্যই হবে। তা না হলে আপনি কোন দেশেই ভ্রমণ করতে যেতে পারবেন না। বাংলাদেশ থেকে অন্য দেশে যাওয়ার জন্য ভিসা অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। এক দেশ থেকে অন্য দেশে যাওয়ার জন্য আপনাকে টাকা দিয়ে ভিসা তৈরি করে নিতে হবে। অনেক রকমের ভিসা রয়েছে যেমন স্টুডেন্ট ভিসা, টুরিস্ট ভিসা ও কৃষি ভিসা ইত্যাদি।

বাংলাদেশে অনেকে আছে যারা মালয়েশিয়া যাওয়ার চিন্তা ভাবনা করতেছে এবং যেতে চাচ্ছে। তবে বর্তমানে মালয়েশিয়া ভিসা বন্ধ আছে। যার কারণে অনেকেই মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে বা খোলা আছে কিনা সে বিষয়ে জানার জন্য ইন্টারনেটে অনুসন্ধান করে থাকে। তাই আজকের পোষ্টে মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে ও মালয়েশিয়া ভিসা আবেদন কিভাবে করতে হয় সে বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য আপনাদের জানানোর চেষ্টা করবো। দেরি না করে চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে।

মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে

বাংলাদেশি অনেকে আছে যারা মালয়েশিয়া যেতে চাচ্ছে কিন্তু বেশিরভাগ মানুষ জানে না মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে। তবে আমাদের সবারই জানা আছে বাংলাদেশ থেকে কোন দেশে যাওয়ার জন্য অবশ্যই ভিসার প্রয়োজন হয়। আর ভিসা তৈরি করার জন্য প্রত্যেকেরই টাকা খরচ করতে হয়। আমাদের বাংলাদেশী অনেক ভাইয়েরা আছে যারা মালয়েশিয়া কাজের উদ্দেশ্যে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। কিন্তু বেশিরভাগ মানুষ মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে সে বিষয়ে জানার জন্য অনলাইনে অনুসন্ধান করে।

তাই সবার সুবিধার্থে মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে সে বিষয় এখন আপনাদের মাঝে এখন তুলে ধরবো। অনেকে জানে আবার অনেকে জানে না কিছু সমস্যার কারণে আপাতত মালয়েশিয়া ভিসা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। যার কারনে বাংলাদেশি অনেকে ভ্রমণ ও কাজের উদ্দেশ্যে মালয়েশিয়া যেতে পারছে না। তবে বাংলাদেশ থেকে যাওয়ার জন্য কিছু ভিসা চালু রয়েছে। মালয়েশিয়া ভিসা ২০২৩ সালের জানুয়ারি মাস থেকে চালু করে দেওয়া হয়েছে।

মালয়েশিয়া কোন কোন ভিসা চালু আছে 

সারা বিশ্বের নিয়ম অনুযায়ী এক দেশ থেকে আরেক দেশে যাওয়ার জন্য ভিসা অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কেননা আপনাকে কোন দেশে যাওয়ার জন্য আগে ভিসা তৈরি করে নিতে হবে। তা না হলে আপনি কোন দেশেই প্রবেশ করতে পারবেন না। বাংলাদেশ থেকে অনেকেই মালয়েশিয়া যেতে চাচ্ছে তবে তাদের প্রথমত প্রয়োজন পড়বে ভিসার।

মালয়েশিয়া অনেক ধরনের ভিসা চালু রয়েছে তবে অনেকে জানে না বর্তমানে মালয়েশিয়া কোন কোন ভিসা চালু আছে। বর্তমান সময়ে মালয়েশিয়া ১৫ ধরনের ভিসা চালু রয়েছে তার মধ্যে থেকে সেরা কয়েকটি ভিসা নিচে উল্লেখ করে দেওয়া হলো।

  • স্টুডেন্ট ভিসা
  • কৃষি ভিসা
  • ফ্যাক্টরি ভিসা
  • এন্ট্রি ভিসা
  • মেডিকেল ভিসা
  • বিজনেস ভিসা
  • এমপ্লয়মেন্ট ভিসা ইত্যাদি।

মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত

বর্তমানে ভিসার দাম ও টিকিটের মূল্য তুলনামূলক ভাবে অনেক বেশি। বর্তমানে মালয়েশিয়া অনেক ধরনের ভিসা চালু রয়েছে কিন্তু একেক ভিসার মূল্য একেক রকম হয়। তবে অনেকের জানা নেই মালয়েশিয়া ভিসার দাম কিরকম হতে পারে। এজন্য তারা ইন্টারনেটে মালয়েশিয়া ভিসার দাম সম্পর্কে অনুসন্ধান করে। তাই সবার সুবিধার্থে নিচে কয়েকটি জনপ্রিয় মালেশিয়ার ভিসার দাম উল্লেখ করে দেওয়া হলো। দেরি না করে চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক মালয়েশিয়ার ভিসা কি রকম দাম হতে পারে।

  • স্টুডেন্ট ভিসার দাম প্রায় ১ লক্ষ ৫০ হাজার থেকে ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।
  • ফ্যাক্টরি ভিসার দাম প্রায় ৫০ হাজার থেকে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।
  • কৃষি ভিসার দাম প্রায় ২ থেকে ৩ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।
  • মেডিকেল ভিসার দাম প্রায় ২ থেকে ৩ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।
  • টুরিস্ট ভিসার দাম প্রায় ৩ থেকে ৪ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।
  • কাজের ভিসার দাম প্রায় ৪ থেকে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।
  • বিজনেস ভিসার দাম প্রায় ৪ থেকে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।

আরো পড়ুনঃ বাংলাদেশ থেকে আমেরিকা যেতে কত টাকা লাগে

মালয়েশিয়া ভিসা আবেদন করার নিয়ম

বাংলাদেশ থেকে আপনি যে কোন দেশে যান না কেন আপনাকে প্রথমত ভিসা আবেদন করে ভিসা তৈরি করে নিতে হবে। আমাদের বাংলাদেশেও অনেকে আছে যারা মালয়েশিয়া কাজের উদ্দেশ্যে বা ভ্রমণের উদ্দেশ্যে যেতে চাচ্ছেন। তবে অনেকের ভিসা সম্পর্কে ধারণা না থাকায় বুঝতে পারছে না ভিসা তৈরি করতে কি কি কাগজপত্র লাগবে এবং মালয়েশিয়া ভিসার জন্য কি করা লাগবে।

সর্বপ্রথম আপনাকে মালয়েশিয়া ভিসার জন্য আবেদন করে নিতে হবে। তাই আপনাদের সুবিধার্থে কিভাবে আবেদন করবেন সে নিয়ম গুলো নিচে উল্লেখ করে দেওয়া হলো। সময় নষ্ট না করে চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক।

  • প্রথমে আপনাকে যেকোনো একটি ভিসা নির্ধারণ করতে হবে।
  • এরপর মালয়েশিয়া টুরিস্ট, ছাত্র, ব্যবসায়ীক অথবা কাজের ভিসা এগুলোর ধারণাগুলো থাকতে হবে।
  • তারপর মালয়েশিয়ার আধিকারিক ভিসা আবেদন পোর্টালে গিয়ে আবেদন ফরম পূরণ করুন।
  • আপনার ভিসার ধরণ, আপনার স্থায়ী ঠিকানা, পেশাদার তথ্য, পাসপোর্ট নম্বর এছাড়াও আরো অন্যান্য প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে ফর্ম পূরণ করতে হবে।
  • আপনার ফরম পূরণ হয়ে গেলে সেটাকে সমর্পণ করতে হবে। আপনি চাইলে অনলাইনেও আবেদন সমর্পণ করতে পারেন।
  • এরপর আপনাকে সেই পৃষ্ঠার নির্দিষ্ট নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে।
  • আপনার আবেদন করা হয়ে গেলে ভিসার আবেদনের টাকা প্রদান করতে হবে। আপনার ভিসা অনুসারে মালয়েশিয়ার ভাতা ফ্রি পরিশোধ করে নিতে হবে।
  • এরপর আপনার ভিসা আবেদন প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হয়ে গেলে আপনার পাসপোর্ট, ভিসা আবেদন ফরম এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় তথ্য আপনাকে সাবমিট করতে বলতে পারে। আপনার সকল তথ্য মালয়েশিয়ার ভাষ্য কাঠামো অনুসারে প্রদান করতে হবে।
  • আপনি যেগুলো ডকুমেন্টস ভেরিফাই করার জন্য সাবমিট করেছেন বা আপনার আবেদন ভেরিফাই হয়ে গেলে তারপর মালয়েশিয়ার দূতাবাসের কর্মকর্তা আপনার ভিসা আবেদন সাবমিট করার  ডকুমেন্টস ভিত্তিক আপনার ভিসা নির্ধারণ করবেন।
  • পরিশেষে আপনার ভিসা আবেদন সম্পূর্ণ হওয়ার পর আপনার ভিসা যদি আবেদন অনুমোদিত হয় তাহলে এবার আপনি ভিসা প্রাপ্ত করতে পারেন।

শেষ কথাঃ

আজকের পোষ্টে মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে এবং মালয়েশিয়া ভিসা আবেদন কিভাবে করতে হয় সে বিষয়ে আপনাদের জানানোর চেষ্টা করেছি। আশা করি আপনারা মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে ও মালয়েশিয়া ভিসা আবেদন কিভাবে করতে হয় সে বিষয়ে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। যদি আমাদের আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের কাছে ভালো লেগে থাকে তাহলে বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে দিন। এছাড়াও এরকম আরো নতুন নতুন তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটের সাথে থাকুন।

Leave a Comment